বুধবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:২৮ পূর্বাহ্ন

দূষিতদের বের করে দিয়ে, বিশুদ্ধ আওয়ামী লীগ চাই: কাদের

বিডি নিউজ ৭১ ডেস্ক:

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা স্মার্ট আওয়ামী লীগ চাই। আরও আধুনিক আওয়ামী লীগ চাই, বিশুদ্ধ আওয়ামী লীগ চাই। দূষিত রক্ত চাই না। দূষিত রক্ত বের করে দিয়ে আবার আওয়ামী লীগের সব পর্যায়ে বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করতে হবে।

তিনি বলেন, যারা পদ পেয়ে ছাড়তে চান না তারা মনে রাখবেন আওয়ামী লীগে শেখ হাসিনা ছাড়া আমরা কেউই অপরিহার্য নই। কোনো পদ কারও কাছে লিজ দেয়া হয়নি। পরিষ্কার বলে দিতে চাই, আজকে প্রভাব খাটাবেন, জোর করে পদ দখল করে রাখবেন, মনে হয় যেন মৃত্যুর আগে পদ ছাড়বেন না। এ রকম লোকও আছেন।

রোববার (১৩ অক্টোবর) রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের রাজশাহী বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চলমান অভিযান নিয়ে নেতাদের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, খারাপ লোকের আমাদের দরকার নেই। ক্লিন ইমেজের পার্টি দরকার, আগামী জাতীয় কাউন্সিলকে সামনে রেখে আমরা আমাদের দলকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নতুন মডেলে ঢেলে সাজাতে চাই। আমরা ক্লিন ইমেজের নেতৃত্ব গড়ে তুলতে চাই সারা দেশে। খারাপ ইমেজের লোক, যাদের ভাবমূর্তি নেই, এই সব লোকদের দলে টেনে পাল্লা ভারি করে কোনো লাভ নেই। দুষ্টু গরুর চেয়ে শূন্য গোয়াল ভালো। আমার দুষ্টু গরুর দরকার নেই।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী জাতীয় কাউন্সিলের আগেই সব মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির সম্মেলন করার তাগিদ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় কাউন্সিলের আগেই তৃণমূলের মেয়াদ উত্তীর্ণ সব কমিটি করতে হবে। এ নিয়ে কারও গাফিলতি সহ্য করা হবে না।

মন্ত্রী বলেন, সামনে ইউনিয়ন থেকে উপজেলা পর্যায়ে সম্মেলন। এখানে গ্রুপ ভারি করার জন্য যেন বিএনপি-জামায়াতের লোকদের আশ্রয় দেয়া না হয়। আপনি এমপি হবেন, তারপর শালা-সমন্ধিরা নেতা হবে, ত্যাগীরা কোণঠাসা হবে- এটা মেনে নেয়া হবে না।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ এমপি সাহেবের দল নয়। এমপিরা আওয়ামী লীগের। বিতর্কিত কর্মকাণ্ড করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাউকেই সহ্য করবেন না। মনে রাখবেন, তিনি ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ঝেটিয়ে বিদায় করেছেন।

সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম। এ ছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- খাদ্যমন্ত্রী সাধনচন্দ্র মজুমদার, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য প্রফেসর ড. সাইদুর রহমান খান, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা এবং সদস্য মেরিনা জাহান।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2018 bdnews71
Design & Developed BY N Host BD