বুধবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:৪৫ পূর্বাহ্ন

নোবিপ্রবি’তে ভর্তিচ্ছুদের বিনামূল্যে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা: নোবিপ্রবি উপাচার্য

বিডি নিউজ ৭১ ডেস্ক:

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক ১ম বর্ষের দুই দিনব্যাপী ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। ১ ও ২ নভেম্বর দিনব্যাপী চলবে এই পরীক্ষা।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও নগরের ২৯টি কেন্দ্রে এবারের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। মঙ্গলবার রাত থেকেই থেকেই ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা নোয়াখালী আসতে শুরু করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা প্রায় একই সময়ে সম্পন্ন হয়ে যাওয়ায় চট্টগ্রাম থেকে সরাসরি নোয়াখালী চলে আসছেন ভর্তিচ্ছু ও তাদের অভিভাবকরা।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পাশাপাশি ভর্তিচ্ছুদের আতিথেয়তা দিতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে জেলা প্রশাসন, নোয়াখালী ৪ আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী, পৌরমেয়র শহিদ উল্যাহ্ খান সোহেল, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান, জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, নোয়াখালী জেলা পুলিশ প্রশাসন, জেলা ছাত্রলীগ, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সংগঠন,এলাকাভিত্তিক বিভিন্ন ছাত্রকল্যাণ সমিতি, সরকারি বেসরকারি নানা প্রতিষ্ঠানসহ নোয়াখালী জেলার সর্বস্তরের মানুষ। ভর্তিচ্ছুদের সহযোগিতার লক্ষ্যে নানা উদ্যোগ নিয়েছেন নোয়াখালী ৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী। ভর্তিচ্ছুদের বিনামূল্যে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থাসহ ৫০ হাজার বোতল বিশুদ্ধ পানি ও পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে পর্যাপ্ত ফ্রি বাসের ব্যবস্থা করেছেন তিনি।

 


নিজস্ব তহবিল থেকেই তিনি ভর্তিচ্ছুদের জন্য এমন উদ্যোগ নিয়েছেন। এর আগে গত ১ অক্টোবর ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে তিনি এমন সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দেন।

এদিকে, ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জন্য বিনামূল্যে থাকা, খাওয়া, পরিবহন এবং নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে নোয়াখালী পৌরসভার পক্ষ থেকে। সরেজমিনে নোয়াখালী পৌর ভবনে গিয়ে দেখা যায় বুধবার থেকেই ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিবাবকরা আসতে শুরু করেছেন। পৌরসভার পক্ষ থেকে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জন্য বিনামূল্যে আবাসন ও খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

পৌর মেয়র শহিদ উল্যাহ্ খান সোহেল বলেন, ‘ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা আমাদের অতিথি। তাদের আতিথেয়তায় নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে পৌরসভার পক্ষ থেকে। পৌরসভার উদ্যোগে প্রায় ১০ হাজার ভর্তিচ্ছুদের ফ্রি থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।’
তিনি আরও জানান,ভর্তিচ্ছুদের সহায়তার জন্য ৬টি বুথ ও ৩টি মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে। ৪০০ স্বেচ্ছাসেবক পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতায় থাকবেন। প্রতিটি বুথে থাকবে ৩০ জন করে স্বেচ্ছাসেবক। পৌরসভা ভবনসহ শহরের স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা, মসজিদ, আবাসিক হোটেল ও বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে রাখা হবে ভর্তিচ্ছু ও তাদের অভিভাবকদের। শিক্ষার্থীদের কেন্দ্রে পৌঁছে দিতে ২০০টি মোটরসাইকেল থাকবে।

সিলেট থেকে আগত ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী আরাফাত বিল্লাহ বলেন, ‘নতুন করে জানলাম নোয়াখালী সম্পর্কে। সকলের সহযোগিতা ও আন্তরিকতায় আমি মুগ্ধ।’

 

ভর্তি পরীক্ষার সামগ্রিক প্রস্তুতি সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয়য়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. দিদার উল আলম বলেন, ‘সুষ্ঠুভাবে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনসহ নোয়াখালীর সর্বস্তরের মানুষ যেভাবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের যেভাবে আতিথেয়তা দিচ্ছে এক কথায় অভাবনীয়। সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টায় ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে এবং নোয়াখালীর আতিথেয়তা দেখবে বাংলাদেশ।’

উল্লেখ্য, ৩০টি বিষয়ের ১৩৫৫ আসনের বিপরীতে এবার আবেদন জমা পড়েছে ৬৮ হাজার ৭৪৩টি। সে হিসাবে প্রতি আসনের জন্য লড়বে ৫১জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী। প্রথম দিন ১ নভেম্বর শুক্রবার ‘এ’ এবং ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা যথাক্রমে সকাল ১০.৩০টা থেকে দুপুর ১২টা এবং বিকাল ৩টা থেকে ৪টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় দিন ২ নভেম্বর শনিবার ‘সি’, ‘ডি’, ‘ই’ ও ‘এফ’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সকাল নয়টা থেকে সাড়ে দশটা পর্যন্ত হবে ‘সি’ ইউনিট এবং দুপুর সাড়ে বারোটা থেকে দেড়টা পর্যন্ত ‘ডি’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে। একইদিন ‘ই’ এবং ‘এফ’ ইউনিটের পরীক্ষা যথাক্রমে বিকাল ৩টা ৩০ মিনিট থেকে ৪টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। আর ফলাফল প্রকাশিত হবে ৬ নভেম্বর। ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2018 bdnews71
Design & Developed BY N Host BD