বুধবার, ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন

পরীক্ষার আগের দিন রাবির মেধাবী ছাত্র ফিরোজের আত্মহত্যা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ফিরোজ কবির

বিডি নিউজ ৭১ ডেস্ক:

রাত পোহালেই শুরু হবে বিভাগের তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা। এর আগের দিনই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিরোজ কবির নামের এক মেধাবী শিক্ষার্থী।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত গণিত বিভাগের তৃতীয় বর্ষের (২০১৬-১৭) ছাত্র। তার বাড়ি গাইবান্ধা জেলায়। বিভাগের মেধা তালিকায় ফিরোজ দুই নম্বরে ছিলেন।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দিকে বিশ্ববিদ্যালয় পার্শ্ববর্তী আমজাদের মোড় এলাকার রাজু ছাত্রাবাস থেকে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে এটিকে আত্মহত্যা বলে জানিয়েছেন তারা।

ছাত্রাবাসটিতে অবস্থানকারী শিক্ষার্থীরা জানান, ফিরোজ কবীর রুম খুলছিল না। অনেক ডাকাডাকির পর উপায় না দেখে মতিহার থানা পুলিশকে বিষয়টি জানান তারা। পরে পুলিশ এসে রুমের দরজা ভেঙ্গে শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

ফিরোজ কবীরের সহপাঠী রেজাউল করিম বলেন, সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টায় তার সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয় ফিরোজের। মঙ্গলবার থেকে তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা শুরু হবে কিন্তু সে বলেছিল পরীক্ষা দেবে না। পরীক্ষা দেবে না বললে ভাবছিলাম হয়তো মজা করে বলছে। এমন একটা ঘটনা ঘটাবে বিশ্বাসই করতে পারছিনা।

রেজাউল করিম আরও বলেন দ্বিতীয় বর্ষের মাঝামাঝি সময় থেকেই ফিরোজ বলতেন পড়াশোনা ভালো লাগে না। আমরা অনেক বোঝাতাম। রোববারও একসঙ্গে নামাজ পড়েছি। কোনো প্রেমজনিত সমস্যাও নেই যতদূর জানি।

ফিরোজের বন্ধু জহুরুল ইসলাম ইমন জানান, বিভাগের মেধাতালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে সে। পড়ালেখা নিয়ে ব্যস্তই থাকত। বাবা নাই তার। সবার সঙ্গে ততটা মিশত না। আত্মহত্যার কি কারণ থাকতে পারে সেটাও তারা জানেন না।

মতিহার থানার ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ঘটনাটি শুনে আমি ঘটনাস্থলে যায়। ছেলেটির পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2018 bdnews71
Design & Developed BY N Host BD